জেদ্দায় হয়ে গেল বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসী কল্যান সমিতির ১০ম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান - JONOPRIO24

Breaking

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬

জেদ্দায় হয়ে গেল বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসী কল্যান সমিতির ১০ম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান

বাহার উদ্দিন বকুল,জেদ্দা সৌদি আরব : জেদ্দা প্রবাসী বাংলাদেশ সমাজে একটি অতি পরিচিত সামাজিক সংগঠন বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসী কল্যান সমিতি।জেদ্দাস্থ প্রবাসী নোয়াখালীর কতিপয়

মহানুভব সামাজিক ব্যাক্তিত্বদের পদচারনায় ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত সংগঠনটি। জন্মলগ্ন থেকেই সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সৌদি আরব প্রবাসীদের নজর কাড়ে সংগঠনটি।গত ১২ ফেব্রুয়ারী জেদ্দার  একটি পিকনিক স্পটে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল সমিতির ১০ম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান।

 সংগঠনের সভাপতি আক্কাস মিঞার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কনুস্যুলেট জেনারেল, জেদ্দা-র মাননীয়  কনসাল(শিক্ষা ও শ্রম)মুহাম্মদ রেজায়ে-রাব্বি।তাছাড়া বিশেষ অতিথিগণের মধ্যে ছিলেন,সৌদি নাগরিক মিস্টার অয়াদি আল দিরা, সিইও নামা কার্গো। সমিতির প্রধান উপদেষ্টা এ,কে,এম শাহজাহান সীরাজী।আলহাজ্জ আবদুর রহমান,  নুর সামাদ মিয়াজি, এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন সমিতির নেতৃবৃন্দ প্রমুক। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে

 বলেন, প্রবাসে বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসীদের কল্যাণে সমিতির বিশেষ অবদান রাখছে, গরিব ও অসহায় প্রবাসিদের মাজে এগিয়ে আসছে, আর্থিক সাহায্যের মাধ্যমে একামা,চিকিৎসা ও যারা টাকার সমস্যার কারণে দেশে ফিরে যেতে পারছে না তাদের সহযোগিতা সহ ভিবিন্ন আর্থিক সামাজিক উন্নয়নের কাজে এগিয়ে আসছে বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসী কল্যাণ সমিতি। অনুষ্ঠানে জেদ্দাস্থ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তাঁরা হলেন, সর্বজনাব ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আমিন, মুক্তিযুদ্ধা আনোয়ার হোসেন মিন্টু,  মোঃ শাহ আলম,  মঈনুদ্দিন ভূইয়া  আবুল কাশেম সালেহ, সাঈদুল ইসলাম,  মিস্টার খায়ের, মনিরুজ্জামান তফন,মারশাল কবির পান্নু,আব্দুল মান্নান,এম এ আজাদ চয়ন,এইচ এম সেলিম রেজা,রৌশন জামিল শীপু,সহ আরও

 অনেকে। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন সমিতির,ওয়াজি উল্লাহ্‌(উপদেষ্টা) শাহ্‌ মুহাম্মদ ফখরউদ্দিন শামীম(উপদেষ্টা) নুর মুহাম্মদ ভূঁইয়া(উপদেষ্টা)শামছুল আলম(উপদেষ্টা)মুক্তিযুদ্ধা আবুল কাশেম(উপদেষ্টা)শহীদ হোসেন পাটোয়ারী(উপদেষ্টা)খন্দকার আব্দুল মাহবুদ(সহ সভাপতি)মুহাম্মদ সেলিমুল্লাহ(সহ সভাপতি)খায়রুল আলম চৌধুরী (সহ সাধারণ সম্পাদক)মনিরুল ইছলাম (সহ সাধারণ সম্পাদক)মুহাম্মদ শাহবুদ্দিন(সহ সাধারণ সম্পাদক)মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন(সাংগঠনিক সম্পাদক)মুহাম্মদ শাহজালাল(সহ সাংগঠনিক সম্পাদক)আবুল খায়ের ভুঁইয়া(সহ সাংগঠনিক সম্পাদক)এ কে এম সাহ আলম মিয়াঁ(অর্থ সম্পাদক)খোরশেদ আলম(সহ অর্থ সম্পাদক)মুহাম্মদ

 হেদায়েত হসেন,মুহাম্মদ ইস্লাম,আবু নাছের সিদ্দিক,এইচ এম ওয়ালি উল্লাহ,সাহদাত হসেন,ইমাম হসেন,নুর মুহাম্মদ কাউছার,মুহাম্মদ মোস্তফা হায়দার,বাহার উদ্দিন বকুল,মনির পাটোয়িরী,জহিরুল ইস্লাম,মিজানুর রহ্মান,মুহাম্মদ একরামুল হক,মুহাম্মদ কালাম,মঈনুদ্দিন নোমানি,সাহদাত হোসেন,সহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।  সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমির মুহাম্মদ ফিরোজ ও হেদায়েত
উল্লাহ্‌ এর যৌথ পরিচালনায়,অনুষ্ঠানের সূচনায় পবিত্র কোরান থেকে তেলোয়াত করেন,মাওলানা মাস্কুর,স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমিতির প্রধান উপদেষ্টা এ,কে,এম শাহজাহান সীরাজী।বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসী কল্যাণ সমিতি, জেদ্দা; প্রতি বছর অন্তর সংগঠনের ২ জন সদস্যকে আজীবন সদস্য সম্মাননা’ প্রদান করে থাকেন।এবার সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছেন,আবুল খায়ের ভুঁইয়া,এবং এ কে এম সাহ আলম মিয়াঁ,এছাড়া বৃহত্তর নোয়াখালী কৃ্তি সন্তানদের মধ্যে গত বার পরীক্ষায় যারা কৃতিত্তপূ্র্ন ফলাফল করেছে তাদেরকে সমিতির পক্ষ থেকে গোল্ড ম্যডেল প্রদান করা হয়।এছাড়া ও বৃহত্তর নোয়াখালীর প্রতিষ্ঠিত ব্যবসাইদেরকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
আর্তমানবতার সেবায় সমিতির কার্যক্রমঃ 
বিগত আর্থ বছরে বৃহত্তর নোয়াখালী প্রবাসী কল্যান সমিতি,জেদ্দা সৌদি আরব কর্তিক কল্যাণমূলক কার্যক্রমের সংক্ষিপ্ত কিছু অংস।
চিকিৎসা ব্যায় নির্বাহ খাতঃ ১/জনাব শহিদুজ্জামান,ঢাকা,২/জনাবা মুন্নি আক্তার,চাটখিল নোয়াখালী,৩/জনাবা শামছুন নাহার,জেদ্দা সৌদি আরব,৪/জনাবা শামছুল আলম,চাটখিল নোয়াখালী,৫/জনাব মোঃ হানিফ,সদর নোয়াখালী।
শিক্ষা ব্যায় নির্বাহ খাতঃ ১/কোরানের আলো,বাংলাভিশন ঢাকা।
আর্থিক সাহয্য খাতঃ ১/জনাবা সেতারা বেগম,ফিরোজপুর,২/জনাব নাজির আহমেদ,জেদ্দা সৌদি আরব,৩/জনাবা ফাতেমা বেগম,চাটখিল নোয়াখালী,৪/জনাবা মনোয়ারা বেগম,সোনাইমুড়ী নোয়াখালী।
মৃত ব্যক্তির দেহ প্রেরন খাতঃ মরহুম হুমায়ুন কবির মতলব চাদপুর।

বিমান টিকেট ক্রয়ের সহায়তা খাতঃ ১/জনাব সাদেক উল্লাহ্‌ কোম্পানীগঞ্জ নোয়াখালী,২/জনাব ওমর ফারুক জেদ্দা সৌদি আরব। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় ছিলও মধ্যাহ্নভোজ এ ছাড়াও ছিল ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা।প্রথমে নোয়াখালী আঞ্চলিক গান পরিবেশন করেন সমিতির সভাপতি জনাব আক্কাস মিয়া ও তার দল। অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত শিল্পী মিজারনুর রহমান এবং তার দল। বাংলাদেশী শিল্পীগণের মধ্যে ছিলেন মিজান, জাকির হোসেন,রমজান,  মাতিয়ে রাখেন সংগীত মূর্চ্ছণায়। তছাড়া অনুষ্ঠানে জেদ্দা প্রবাসী সকল স্তরের সুধীজনেরা সপরিবারে অংশগ্রহণ করেন। সংগঠনের সভাপতি আক্কাস মিঞার সমাপনি বক্তব্যে বলেন,আমাদের আর কোন দাবি নাই,নোয়াখালী বিভাগ চাই।বৃহত্তর নোয়াখালীকে শীগ্রই বিভাগ ঘোষণার দাবি তিনি।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Top Ad

Responsive Ads Here