ছিটবাসীদের ট্রাভেলপাস ৩০ নভেম্বরের মধ্যে - JONOPRIO24

Breaking

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

রবিবার, ১২ জুলাই, ২০১৫

ছিটবাসীদের ট্রাভেলপাস ৩০ নভেম্বরের মধ্যে

জনপ্রিয় ডেস্ক : বাংলাদেশ ও ভারতে যেতে আগ্রহী ছিটমহলবাসীদের যাতায়াতের জন্য ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ট্রাভেল পাস দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের সহকারী হাই কমিশনার সন্দীপ মিত্র।রোববার দুপুরে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার বড়শশী ইউনিয়নের শালবাড়ি ছিটমহলের জনগণনা পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। ভারতের সহকারী হাই কমিশনার আরো জানান, বাংলাদেশ ও ভারতের আগ্রহী ছিটমহলবাসী যারা ভারতে যেতে ও বাংলাদেশে আসতে ফরম পূরণ করেছেন তাদের আগামী ১ আগস্ট থেকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে কাগজপত্র ঠিক করাসহ যাবতীয় আনুসাঙ্গিক কাজ শেষ করতে হবে।

সন্দীপ মিত্র আরো জানান, ট্রাভেল পাসের পর তাদের কীভাবে নিয়ে যাওয়া হবে ও কীভাবে পুনর্বাসন করা হবে তা দুদেশের সরকার আলোচনার মাধ্যমে ব্যবস্থা নেবে। জনগণনা পরিদর্শনকালে ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির পঞ্চগড়-নীলফামারী শাখার সভাপতি মফিজার রহমান, শালবাড়ি ছিটমহলের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলামসহ আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে ভারতের সহকারী হাই কমিশনার সন্দীপ মিত্র পঞ্চগড় সদর উপজেলার গাড়াতি ছিটমহলেও যান জনগণনা পরিদর্শন করতে। প্রসঙ্গত, গত ৬ জুলাই বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ উদ্যোগে ছিটমহলগুলোতে জনগণনার কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ১৬ জুলাই পর্যন্ত চলবে এ কার্যক্রম। জনগণনার জন্য জেলার পঞ্চগড় সদর, বোদা এবং দেবীগঞ্জ উপজেলার মোট ৩৬টি ছিটমহলের জন্য ১৮টি ক্যাম্প করা হয়েছে। এর মধ্যে পঞ্চগড় সদরের ৭টি ছিটমহলে ৩টি, বোদা উপজেলায় ২৩টি ছিটমহলে ৬টি ও দেবীগঞ্জ উপজেলায় ৬টি ছিটমহলে ৯টি ক্যাম্প স্থাপন করা হয়। জনগণনায় ২৫ সদস্যের একটি ভারতীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সমান সংখ্যক বাংলাদেশি গণনাকারী অংশ নিচ্ছেন। ২০১১ সালের ভারত-বাংলাদেশ যৌথ জনগণনা অনুযায়ী পঞ্চগড়ের ৩৬ টি ছিটমহলের লোক সংখ্যা ১৯ হাজার ৪৩ জন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Top Ad

Responsive Ads Here