অভিবাসী সঙ্কট: ‘ইউরোপকে আরো দায়িত্ব নিতে হবে’ - JONOPRIO24

Breaking

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৫

অভিবাসী সঙ্কট: ‘ইউরোপকে আরো দায়িত্ব নিতে হবে’

জনপ্রিয় ডেস্ক : ভূমধ্যসাগরে অবৈধ অভিবাসীদের নিয়ে যে সঙ্কট শুরু হয়েছে তা সমাধানে ইউরোপের অধিক ক্ষমতাশালীদেশগুলোকে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে বলে  মত প্রকাশ করেছেন গ্রিসের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী কস্তাস ইসিচস। বিবিসিকে তিনি বলেন, অভিবাসীদের উদ্ধার ও আশ্রয় দেয়ার ক্ষেত্রে উত্তর ইউরোপের দেশগুলোর অবশ্যই আরও বেশি কাজ করতে হবে। গ্রিস, ইতালি ও স্পেন এ বিষয়ে একই অবস্থানে থেকে কাজ করছে বলেও জানান তিনি। বৃহস্পতিবার অভিবাসী বিষয়ে আলোচনার জন্য ইইউভুক্ত দেশগুলো একটি জরুরি বৈঠকে মিলিত হবে। রবি ও সোমবার ভূমধ্যসাগরে অভিবাসী বোঝাই কয়েকটি নৌযানডুবির ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে রোববার প্রায় নয় শতাধিক যাত্রী নিয়ে লিবিয়ার জলসীমায় একটি জাহাজ ডুবির ঘটনায় আট শতাধিক মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। ওই দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে বুধবার ইতালির পার্লামেন্টে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেও রেনজি তার এমপিদের উদ্দেশ্য করে বলেন, তিনি চান একটি ইউরোপীয় দলইতালিতে আশ্রয় প্রার্থনা করা আবেদনগুলো নিয়ে কাজ শুরু করুক। ওদিকে, ওই দুইদিনের দুর্ঘটনার পর বুধবার সকাল পর্যন্ত ইতালির কোস্টগার্ড পাঁচশর বেশি অভিবাসীকে উদ্ধার করে ডাঙ্গায় নিয়ে এসেছে।
মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার দেশগুলোতে সাম্প্রতিক সময়ে যুদ্ধ ও অর্থনৈতিক অবস্থার চরম অবনতি ঘটায় ভাগ্য অন্বেষণে ওই সব দেশের জনগণ ইউরোপের দেশগুলোতে পাড়ি জমানোর আশায়বিপদসঙ্কুল সমুদ্র পথে ঝুঁকিপূর্ণ নৌযানে করে পাড়ি জমাচ্ছে। ফলে নৌযান ডুবে নিহতের সংখ্যাও ভয়াবহ মাত্রায় বেড়ে গেছে। ইন্টারন্যাশনাল অরগানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত বছরের তুলনায় এবছর এখন পর্যন্ত মৃত্যুর হার ৩০ গুণ বেশি। বছরজুড়ে এ ধারা অব্যাহতথাকলে বছর শেষে মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজার হবে। অভিবাসীদের মানবাধিকার বিষয়ে জাতিসংঘের বিশষ দূত ফ্রাঙ্কইস ক্রেপেউ বলেন, নৌকা ডুবে অভিবাসীদের মৃত্যুর এই ধারাবাহিকতা বন্ধে ইউরোপের ধনী দেশগুলোর আগামী পাঁচ বছরেসিরিয়া থেকে আগত অন্তত দশ লাখ শরণার্থীকে আশ্রয় দেয়া উচিত।

যদি আমরা অভিবাসীদের জন্য আনুষ্ঠানিক কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করি তবে তারা মানব পাচারকারীদের শিকারে পরিণত হবে। ইউরোপের নিষ্ক্রিয়তাই মূলত পাচারকারীদের সুযোগ করেদিচ্ছে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Top Ad

Responsive Ads Here