ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে তারেক রহমানের কর্মময় জীবন নিয়ে আলোকচিত্র প্রদর্শনী - JONOPRIO24

Breaking

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শুক্রবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৪

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে তারেক রহমানের কর্মময় জীবন নিয়ে আলোকচিত্র প্রদর্শনী



জনপ্রিয় ডেস্ক : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫০তম জন্মদিন উপলক্ষে তার কর্মময় জীবন নিয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে এক আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ টায় ইউকে-বাংলাদেশ রিলেশন ডেভেলপমেন্ট ইউনিটের (ইউকেবিআরডিইউ) উদ্যোগে এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি পারভেজ মল্লিকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। হাউস অব কমন্সের টিডিআরবি হলে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বৃটিশ এমপি মার্ক ফিল্ড।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইউকে-বাংলাদেশ রিলেশন ডেভেলপমেন্ট ইউনিটের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কামাল উদ্দিন।মার্ক ফিল্ড তারেক রহমানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, উন্নয়সহযোগী দেশ হিসেবে ব্রিটেন বাংলাদেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে। আর এজন্য বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা জরুরি। তিনি আরো বলেন, গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠায় প্রতিবেশী দেশ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা অর্জন করার লক্ষ্যে বাংলাদেশে জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে উৎসাহিত করেন তারেক রহমান।আন্তর্জাতিক কূটনীতিতে তার নিজস্ব অভিজ্ঞতা এবং ব্রিটেন  আমেরিকা থেকে অর্জিত জ্ঞানের আলোকে এই ধরনের নির্বাচনের গুরুত্ব তারেক রহমান ভালোভাবে উপলব্ধি করেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। মার্ক ফিল্ড আরো বলেন, বাংলাদেশে পূর্ণাঙ্গ গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তারেক রহমান আঞ্চলিক ও বিভিন্ন মহাদেশীয় মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে শক্তিশালী কূটনৈতিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের স্বপ্ন দেখেন, স্বপ্ন দেখেন একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশের।মার্ক ফিল্ড তারেক রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশে সুশাসন ও গণতন্ত্রের ভীত শক্তিশালী হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। তিনি বিভিন্ন আলোকচিত্রের মাধ্যমে তারেক রহমানের সাথে তৃণমূলের সম্পৃক্ততা দেখে বলেন, নিজস্ব মেধা, বুদ্ধি ও চিন্তা চেতনা নিয়ে তারেক রহমান সাধারণ জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে তথা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যেতে পারবেন। তিনি সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে বাংলাদেশের রাজনীতিতে সক্রিয় হবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন মার্ক ফিল্ড।গ্রেট বৃটেন ট্রান্সপোর্ট অথরিটির সাবেক সেক্রেটারি মিসেস আইলিন তারেক রহামানের কর্মময় জীবনের বিভিন্ন চিত্র কর্ম দেখে অভিভূত হন।তিনি তারেক রহমানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, মাটি ও মানুষের সঙ্গে মিশে থাকা এই নেতা নিশ্চয়ই অনেক বিশেষ গুণাবলীর অধিকারি। আমি তার উত্তোরোত্তর মঙ্গল কামনা করি। স্বাগত বক্তব্যে কামাল উদ্দিন বলেন, এই প্রদর্শনীতে তারেক রহমানের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন কর্মসূচীর ছবি স্থান পেয়েছে।তিনি তারেক রহমানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে  বলেন, আমাদের  নেতা সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে যাবেন। তার যোগ্য ও আধুনিক নেতৃত্বে আগামী দিনে বাংলাদেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাবে এটাই তার ৫০তম জন্মদিনে কামনা করি। তিনি সবাইকে এই প্রদর্শনীতে উপস্থিত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান।২ ঘন্টা ব্যাপী এই প্রদর্শনীতে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, সিটিজেন মুভমেন্টের আহ্বায়ক এম এ মালেক, তারেক রহমানের মানবাধিকার বিষয়ক উপদেষ্টা ব্যারিষ্টার এম এ সালাম, শিক্ষা ও গবেষণা উপদেষ্টা মাহদী আমিন, বিশেষ রাজনৈতিক উপদেষ্টা হুমায়ুন কবির, সাবেক ট্রান্সপোর্ট সচিব মি. জেফ, গ্রেট ব্রিটেন ট্রান্সপোর্ট অথরিটির সাবেক সেক্রেটারি মিসেস আইলিন, মি. টম, আল জাজিরার সাংবাদিক গেরি, ডেইলী মেট্রোর পলিটিক্যাল করেসপনডেন্ট উইলিয়াম, বিশিষ্ট টিভি ব্যক্তিত্ব ও চলচ্চিত্র পরিচালক জুবায়ের বাবু, আমিনুল ইসলাম আলিম, ব্যারিষ্টার গিয়াস উদ্দিন রিমন, শরীফুজ্জামান তপন, প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন, নাসিম আহমেদ চৌধুরী, ড. মুজিবুর রহমান, ব্যারিস্টার তমিজ উদ্দিন, শফিকুল ইসলাম রিবলু, গোলাম জাকারিয়া, আবেদ রাজা, খসরুজ্জামান খসরু, আমিনুর রহমান আকরাম, নাসির আহমেদ শাহীন, আবুল হোসেন, সেলিম আহমেদ, পাবেল আহমেদ, মঈন উদ্দিন প্রমূখ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Top Ad

Responsive Ads Here